হঠাৎ পুলিশ ফাঁ`ড়ির সামনের ভ`বনের ছাদে উ`পড় পড়ল নারীর লা`শ!

ঝা`লকাঠি সদর পু`লিশ ফাঁ`ড়ির সা`মনের ভ`বনের ছাদ থেকে এক নারীর লা`শ উ`দ্ধার করেছে পু`লিশ। বুধবার (২৫ নভেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে লা`শটি উ`দ্ধার করা হয়। উ`দ্ধারের পর লা`শটি ম`য়নাতদন্তের জন্য ঝা`লকাঠি ম`র্গে পা`ঠানো হয়েছে। প্রা`থমিকভাবে ওই না`রীর পরিচয় নি`শ্চিত করতে পারেনি পু`লিশ।স্থা`নীয় ব্য`বসায়ী নুর হোসেন জানান, বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ছা`দে তাল প`ড়ার মতো শব্দ আসে।

ওই ভবনের নিচে ক`র্মরত শ্র`মিকরাও শ`ব্দটি শুনতে পান। পরে ছা`দে গি`য়ে ম`ধ্যবয়সী এক না`রীর লা`শ দেখতে পান তারা। লা`শটি উ`পুড় হয়ে পড়ে ছিল। বি`ষয়টি পু`লিশকে জা`নানো হলে পু`লিশ ও ফা`য়ার সা`র্ভিসের ক`র্মীরা ঘ`টনাস্থলে গিয়ে লা`শ উ`দ্ধার করে।স্থা`নীয়রা জানান, চ`ট্টগ্রামে কা`স্টমসে ক`র্মরত আ`ব্দুল জলিল তা`লুকদারের ভবনের ছাদে কিছু পড়ার শব্দ শোনা যায়।

পরে ভবনের নিচে কর্মরত শ্র`মিকরা ওপরে গিয়ে দেখেন, এক না`রীর লা`শ পড়ে আছে। ধা`রণা করা হচ্ছে, ওই না`রীকে হ`ত্যা করে প`শ্চিম পা`শের ভ`বনের ছা`দ থেকে আ`ব্দুল জলিল তা`লুকদারের ভ`বনের ছা`দে ফেলে দেয়া হয়েছে। পরে মৃ`তদেহ টে`নে ছা`দের ম`ধ্যবর্তী স্থানে স`রিয়ে রাখা হয়েছে। লা`শের উ`ভয় পা`য়ের গো`ড়ালি ফা`টা এবং তা থেকে র`ক্তপা`ত হয়নি।

প`শ্চিম পা`শের ভ`বনের ছাদ থেকে প`রিত্য`ক্ত অবস্থায় একটি বো`রকা এবং একটি পার্স ব্যাগ উ`দ্ধার করা হয়েছে। সেই ব্যা`গে রা`খা জা`তীয় প`রিচয়পত্রের নতুন ফ`টোকপি পাওয়া গেছে। সেখানে ওই নারীর প`রিচয়পত্র কি-না তা নি`শ্চিত হতে না পারলেও এক না`রীর

প`চিয়পত্র রয়েছে। যাতে লেখা রয়েছে-স`দর উ`পজেলার দ`ক্ষিণ পি`পলিতা গ্রা`মের জা`লাল আ`হমেদের মেয়ে শা`হানাজ আ`ক্তার। জন্ম তারিখ ১৯৭৭ সালের ১ ফেব্রুয়ারি।এ বিষয়ে ঝা`লকাঠি সদ`র থা`নার ভা`রপ্রা`প্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. খলিলুর রহমান জানান, ঝালকাঠি সদর পু`লিশ ফাঁ`ড়ির সামনে থেকে এক মধ্যবয়সী নারীর লা`শ উ`দ্ধার করা হয়েছে।

নারীর মৃ`ত্যুটি রহস্যজনক বলে প্রাথমিকভাবে ধা`রণা করা হচ্ছে। সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি শেষে ম`য়নাতদন্তের জন্য লা`শটি সদর হাসপাতাল ম`র্গে পাঠানো হয়েছে। তিনি আরও জানান, প`শ্চিম পা`শের ভব`নের ছাদ থেকে প`রিত্যক্ত অবস্থায় একটি বো`রকা এবং একটি পা`র্স ব্যাগ উদ্ধার করা হয়েছে। পার্সে এক নারীর পরিচয়পত্র রয়েছে। তবে এটা ওই নারীর পরিচয়পত্র কি-না তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে খতিয়ে দেখা হচ্ছে।