বিশ্বে প্রথম করোনা ভ্যাকসিনের সাফল্যের দাবি রাশিয়ার

করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন প্রথম কোন দেশ তৈরি করবে, তা নিয়ে জোর চর্চা চলছিল। এর মধ্যেই রাশিয়ার সেশনভ ফার্স্ট মস্কো স্টেট মেডিকেল ইউনিভার্সিটির দাবি, তাদের তৈরি ভ্যাকসিনের মানবদেহে ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে।

পরীক্ষার ফল যথেষ্ট ইতিবাচক বলেও দাবি তাদের। খবর এনডিটিভি ও রাশিয়ার সরকারি বার্তা সংস্থা স্পুটনিকসহ বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের।

খবরে বলা হয়, রাশিয়ার গামালেই ইন্সটিটিউট অব এপিডেমিওলজি অ্যান্ড মাইক্রোবায়োলজিও ওই ভ্যাকসিন তৈরির সঙ্গে যুক্ত। তাদের এ করোনা ভ্যাকসিনের হিউম্যান ট্রায়াল শুরু হয়েছিল ১৮ জুন। এ পরীক্ষায় সফলতার সঙ্গে উত্তীর্ণ হয়েছে ভ্যাকসিনটি।

ইন্সটিটিউট ফর ট্রানশ্লেসনাল মেডিসিন অ্যান্ড বায়োটেকনোলজির পরিচালক ভাদিম তারাসোভ জানান, করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে বিশ্বে প্রথমবার স্বেচ্ছাসেবকদের ওপর পরীক্ষা সফলভাবে সম্পন্ন করেছে সেশনভ ইউনিভার্সিটি।

ট্রায়ালে অংশ নেয়া স্বেচ্ছাসেবকদের প্রথম দলটিকে আগামী বুধবার ছেড়ে দেয়া হবে। দ্বিতীয় দলটি ছাড়া পাচ্ছে ২০ জুলাই।

সেশনভ ইউনিভার্সিটির ইন্সটিটিউট অব মেডিকেল প্যারাসাইটোলজির পরিচালক আলেকজান্ডার লুকাশেভ জানান, তাদের গবেষণার প্রাথমিক লক্ষ্য ছিল এটি মানবদেহের জন্য নিরাপদ কি না, তা নিশ্চিত করা, যা সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছে।

তিনি বলেন, আমাদের গবেষণা সম্পন্ন হয়েছে এবং ভ্যাকসিনটি নিরাপদ তা নিশ্চিত হয়েছে। তবে কবে থেকে এ ভ্যাকসিনের বাণিজ্যিক উৎপাদন শুরু হতে পারে, সে ব্যাপারে কিছুই জানাননি তিনি।