সন্তান না নেয়ায় ছেলে ও ছেলের বউকে আদালতে নিলেন বাবা-মা

সন্তান না নেয়ায় ছেলে ও ছেলের বউকে আদালতে তুলেছেন ভারতের এক দম্পতি।
সঞ্জীব ও সাধনা প্রসাদ দম্পতি বলেছেন, হয় এক বছরের মধ্যে নাতি-নাতনি দিতে হবে না হয় তাদের পাঁচ কোটি রুপি বা সাড়ে ছয় লাখ ডলার দিতে হবে।

তারা বলেছেন, নিজেদের সঞ্চয় খরচ করে ছেলেকে বড় করেছেন, পড়া লেখা করিয়েছেন, পাইলট বানিয়েছেন; এবার তারা সন্তানের কাছে তার প্রতিদান চান।

এই দম্পতি বলেন, ‘তারা ছয় বছর হয়েছে বিয়ে করেছে কিন্তু এখনও তারা সন্তান নেয়ার কোন পরিকল্পনা করেনি। আমরা সময় কাটানোর জন্য একটা নাতি-নাতনি চাই।’

আর নাতি-নাতনি দিতে না পারলে ৫ কোটি রুপি বা সাড়ে ছয় লাখ ডলার দাবি করেছেন। এর মধ্যে রয়েছে পাঁচ তারকা হোটেলে ছেলের বিয়ের অনুষ্ঠানের খরচ, বিদেশে হানিমুন ও ৮০ হাজার ডলার মূল্যে তাদের দেওয়া দামি গাড়ির খরচ।

উত্তরাখণ্ডের ওই দম্পতি আরও বলেন, ‘বাড়ি বানাতে আমরা আরও ঋণ নিয়েছি। আমরা এখন আর্থিক দিক থেকে কঠিন অবস্থার মধ্য দিয়ে যাচ্ছি। মানসিকভাবেও আমরা বিরক্ত, কারণ আমরা নিঃসঙ্গ সময় পার করছি।’

এই দম্পতির আইনজীবী অরবিন্দ কুমার বলেন, হরিদ্বার আদালতে করা মামলাটির শুনানি ১৭ শুরু হবে।

উল্লেখ্য, ভারতে বহু আগে থেকেই যৌথ পরিবার ব্যবস্থা লক্ষ্যণীয় এর কারণে পরিবারের সবাই একসাথে বসবাস করে থাকে।

কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে এই যৌথ পরিবার ব্যবস্থা ভেঙে যেতে দেখা যায় এবং তরুণ দম্পতিদের পরিবারের সাথে থাকা, সন্তান ধারণ, পালনের চাইতে নিজেদের ক্যারিয়ার নিয়ে উদ্বিগ্ন হতে দেখা যায় বেশি।
সূত্র: আল-জাজিরা