কনেবাড়ি খুঁজে হয়রান বরযাত্রীরা, ফিরতে হলো বিয়ে না করেই

ভারতের উত্তর প্রদেশের মাউ এলাকায় কনেবাড়ির ঠিকানা খুঁজে খুঁজে হয়রান বরযাত্রীরা অবশেষে ক্লান্ত হয়ে বাড়ি ফিরে গেলেন। তাদের অভিযোগ, কনের আত্মীয়রা যে ঠিকানা দিয়েছিল তার অস্তিত্বই নেই, মেয়েটা আদৌ আছে কিনা তাও বোঝা যাচ্ছে না।চলতি মাসের ১০ তারিখ এই ঘটনা ঘটেছে। শীতের রাতে বন্ধুবান্ধব নিয়ে শোভাযাত্রা করে আজমগড় থেকে মাউ এসেছিলেন হবু বর।

তারপর শহরজুড়ে কনের বাড়ি খুঁজলেন কিন্তু কোথায় কী! এমন কোনো ঠিকানাই নেই। শেষমেষ রাগে গনগন করতে করতে আজমগড় ফিরে যান তারা। শীতের কুয়াশায় কনেটা কোথায় লুকিয়ে পড়ল কে জানে!বরের বাড়ি আজমগড়ের কোতয়ালি এলাকার কাঁসিরাম কলোনিতে। যে ঘটক মহিলা সম্বন্ধ এনেছিলেন তাকে যাচ্ছেতাই গাল দিয়েছেন তারা। এমনকী শনিবার সারারাত আটকে রাখেন।

খবর যায় থানাতেও। কিন্তু মুশকিল হল, বর বা তার পরিবার, কেউ বিয়ের আগে একবারও পাত্রীর বাড়ি যাননি। অথচ তথাকথিত কনে বিয়ের গোছগাছের কথা বলে তাদের কাছ থেকে ২০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়।এ ছেলের বৌ ভাগ্য সত্যিই খারাপ। ৪ বছর আগে তার বিয়ে হয়েছিল বিহারের সমস্তিপুরে। বিয়ের কয়েক মাস পর বৌ বাপের বাড়ি যায়, আর ফিরে আসেনি। এরপর পাত্রের বাড়ির লোক তার আবার বিয়ে দেয়ার জন্য পাত্রী দেখতে শুরু করেন। তারপর এই ঘটনা ঘটল!