বিছা*নায় ভুলেও এই কাজগুলো করবেন না, রাতারাতি ফকির হয়ে যাবেন…

রাতে যে বিছানায় ঘুমান, সকালে কি সেই একই বিছানায় বসেন ? তাহলে আপনার জীবনে শান্তির অভাব হতে পারে। সকালে ঘুম থেকে উঠে আমরা এমন কিছু ভুল করি যা স্বাস্থ্য-অর্থ-প্রেম, সব কিছুতেই কু-প্রভাব ফেলতে পারে, ডেকে আনতে পারে বিপদ।। জেনে নিন সেই কাজগুলো সম্পর্কে –

অনেকেই আছেন যারা রাতের বিছানা সকালে উঠে বদলান না, অপরিচ্ছন্ন অবস্থায় রেখে দেন। সনাতন ধর্ম অনুযায়ী এই অভ্যাস থাকলে রাহুর দৃষ্টি লাগতে পারে আপনার জীবনে। যার ফলে আপনার শরীর স্বাস্থ্য খারাপ হতে পারে, অর্থ ভাগ্যেও এর প্রভাব পরতে পারে। তাই সকালে ঘুম থেকে উঠে বিছানা পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখুন।

অনেকেই সকালে ঘুম থেকে উঠে বিছানায় খাবার খান। আয়ুর্বেদ অনুযায়ী এই অভ্যাস মোটেও ভালো নয়। এর ফলে স্বাস্থ্যের অবনতি হয়। তাই এই অভ্যাস ছাড়ার পরামর্শ দেন আয়ুর্বেদ বিশেষজ্ঞরা।

সকালে উঠেই আয়না দেখলে রাহুর প্রভাব পরতে পারে আপনার জীবনে। বাস্তু শাস্ত্র অনুযায়ী রাতে ঘুমানোর সময় আমাদের শরীরে অনেক নেতিবাচক শক্তি বাসা বাঁধে। তাই ঘুম থেকে উঠেই আয়না দেখলে সেই অশুভ শক্তি প্রতিফলিত হয়। এই কারনেই বিছানার সামনে আয়না না রাখার পরামর্শ দেন বাস্তু বিশেষজ্ঞরা।

অনেকেই আছেন যারা অ্যালাম বাজার সঙ্গে সঙ্গে হুড়মুড় করে নেমে পরেন বিছানা থেকে। কখনোও ভুলে এমনটা করবেন না। এমন সময় আপনার শরীরের স্নায়ুতন্ত্র বিশ্রামে থাকে। তাই তাড়াহুড়ো করে এরাম কাজ করলে ঘটে যেতে পারে মারাত্মক কোনো বিপদ।

সকাল দুপুর কিংবা রাতের বেলা কখনোই বিছানায় বসে খাবার খাবেন না। এতে মা লক্ষ্মী খুবই রুষ্ট হন। ফলে চরম দরিদ্রতা নেমে আসতে পারে আপনার জীবনে।

নোংরা অবস্থায় কখনোই বিছানায় শোবেন না। এছাড়াও কখনোই ছিঁড়ে যাওয়া বিছানার চাদর বা বালিসের কভার ব্যবহার করবেন না। এতে বাড়িতে অলক্ষ্মীর দৃষ্টি পরে। সনাতন ধর্মে বলা হয়েছে ঘুম থেকে উঠেই বিছানা পরিষ্কার করে স্নান করে বাকি কাজ করা উচিৎ।