পুত্রবধূকে ধ`র্ষ ণ করল লম্পট শ্বশুর : অতঃপর কাণ্ড

নাটোরের সিংড়ায় পুত্র’বধূকে ধ `র্ষ ণের অ’ভিযোগ উঠেছে আব্দুল হামিদ নামে এক

ব্যক্তির বি’রু-দ্ধে। শনিবার রাতে ওই নারী সিংড়া থানায় শ্বশু’রের বি’রুদ্ধে একটি লিখিত

অ’ভিযোগ দা’য়ের করেন। আব্দুল হামিদ উপজেলার বিয়াশ চকপাড়া গ্রামের চাঁন

আলীর পুত্র। তিনি পেশায় কৃষক।জানা যায়, প্রায় ৩ বছর আগে ওই নারীর সঙ্গে

পারিবারিকভাবে বিয়ে হয় আব্দুল হামিদের ছেলে আতিকুল ইসলামের। বিয়ের পর থেকে

পুত্রবধূকে কু প্র স্তাব দিয়ে আসছিলেন আব্দুল হামিদ। দেড় বছর আগে পু’ত্রবধূকে

জো’রপূ র্বক ধ র্ষণের চেষ্টা করে সে। বিষয়টি জানাজানি হলে

আব্দুল হামিদের ছেলে আতিকুল তার স্ত্রীকে নিয়ে অ’ন্যত্র চলে যায়। তাদের ঘরে একটি

পুত্র সন্তান রয়েছে। প্রায় ৭ মাস আগে আব্দুল হামিদ তাদেরকে বাড়িতে ফিরিয়ে আনে।

বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে ১০ এপ্রিল শুক্রবার বিকেলে ধারালো অ -স্ত্র গ’লায় ধরে

পু ত্রব’ধূকে জোরপূ র্বক ধ র্ষণ করে। চিৎকারে এলাকাবাসী ছুটে এলে পালিয়ে যায় সে।

এদিকে বিচারের জন্য থা’নায় অভি’যোগ দিতে চাইলে গ্রাম্য মাতবররা তাকে

নিষেধ করে। গ্রাম্য সালিসে বি’চার করা হবে বলে জানায় তারা। ১৫ দিন পার হলেও

কোনো বিচার না পেয়ে শনিবার থা’নায় অভি’যোগ দেয় ভূ ক্ত’ভো’গী নারী। তিনি জানান,

আমি এই ঘটনার সু ষ্ঠু বিচার চাই। আ. রাজ্জাক ফকির ও মাও. রবিউল নামের দুজন

মাতবর আমাকে থা’নায়

অভি’যোগ করতে নিষেধ করেছিল। আফাজ উদ্দিন, আকরাম হোসেন, বুদ্দু প্রাং,

আলিফ নামের প্রতিবেশীরা জানান, এটি জঘন্যতম একটি কাজ। আমরা দৃ ষ্টান্ত মূ’লক

শা’স্তি চাই।স্থা নীয় ওয়ার্ড আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক ও গ্রাম্য মাতবর আ. রাজ্জাক

ফকির বলেন, এটি একটি স্প র্শকাতর বিষয় যা গ্রামে করা স ম্ভব নয়। আমরা তাদেরকে

থা’নায় অভি’যোগ দিতে বলেছি, নি’ষেধ করেনি। এই অপ’রাধের সঠিক বিচার চাই।

সিংড়াথা’নার ওসি নুর-এ-আলম সিদ্দিকী জানান, এ ঘটনায় লিখিত অভি’যোগ পেয়েছি,

ত’দন্ত অনুযায়ী আই’না’নুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।