যেসব দেশের নারীরা অসম্ভব সুন্দর!

মানুষ সৃষ্টির সেরা জীব। আল্লাহ তায়ালা অসম্ভব সুন্দর করে তৈরি ক’রেছেন। সুন্দর নারী এবং পুরুষ পৃথিবীর সব দেশেই রয়েছে। তবে এটা সত্য যে কিছু দেশ এবং জাতি ভাগ্যবান যে তাদের দেশের নারীরা অন্যান্য দেশের নারীর তুলনায় অনেক সু’ন্দরী। এ রকম সু’ন্দরী নারীদের দেশের কয়েকটি তালিকা নিম্নে দেয়া হল:

১) ব্রাজিল: ব্রাজিলের ল্যাটিন অঞ্চলে স’বচেয়ে বেশি সংখ্যক ফিটনেস মডেল নারী আছে, আর আপনি সেই স্থানের মধ্যে খুঁজে পাবেন বিশ্বের স’বচেয়ে সেরা সু’ন্দরী নারীদেরকে। তাদের সবাই স্বর্ণকেশী, শ্যামাঙ্গিনী নারী যারা কিনা তাদের সে’ক্সি, খেলাধুলার জন্য উপযোগী এবং খুব আক’র্ষণীয় দে’হের জন্য বেশ পরিচিত।

২) রাশিয়া: রাশিয়ান নারীরা সারা বিশ্বে ব্যা’পকভাবে প্রশংসার দাবীদার তাদের লোভনীয় চোখ, নিশ্ছিদ্র পরি’ষ্কার ত্বক, ভালো উচ্চতার সাথে সুন্দর ফিগারের জন্য।

৩) আর্জেন্টিনা: আর্জেন্টিনার নারীরা সৌন্দর্য সচে’তন নারী হিসেবে খুব জনপ্রিয়, সর্বদা তারা তাদের ত্বক এবং চুলের যত্ন করে এবং মনোযোগ দেয়, তাদেরকে যাতে সবচাইতে সেরা সু’ন্দরী দেখায় এসবের দিকেই তাদের বেশি ঝোঁক। এছাড়াও তারা সর্বশেষ ফ্যাশন চলন, প্র’বণতার সাথে তাল মিলিয়ে চলে।

৪) ভেনেজুয়েলা: মিস ইউনিভার্স এবং মিস ওয়ার্ল্ড সু’ন্দরী প্রতিযোগিতায় অধিকাংশ বিজয়ীর দেশ ভেনেজুয়েলা। ভেনেজুয়েলার মেয়েরা খুব সাধারণ, যারা সাধারণত লম্বা, স্লিম শ’রীরের সাথে আবেদনময়ি চেহারার অধিকারিণী হয়ে থাকে।

৫) দক্ষিণ কোরিয়া: দক্ষিণ কোরিয়ার নারীরা দে’খতে নিষ্পাপ তরুণীদের মতো, তাদের ন্যাকাসুলভ সুন্দর চেহারার সাথে রয়েছে ব’ন্ধুসুলভ এবং মনোরম ব্য’ক্তিত্ব। তাদের ত্বক ফর্সা এবং পরি’ষ্কার এবং এর সাথে রয়েছে ঝলমলে কালো চুল এবং খুব আক’র্ষণীয় শা’রীরিক গঠন এবং মাঝারি উচ্চতা।

৬) ইন্ডিয়া: বিভিন্ন সংস্কৃতির সাথে যুক্ত একটি বহুজাতিক দেশ ভারত, যেখানে আছে সমগ্র বিশ্বের অধিকাংশ সু’ন্দরী নারী। তাদের বিষণ্ণ রূপ এবং দীপ্তিশীল চামড়ার জন্য তাদের খুব সুন্দর হিসেবে অনেক বিশেষজ্ঞর কাছে গণ্য করা হয়।

৭) সার্বিয়া: স্লাভিক এবং ভূমধ্য বংশগতি সার্বিয়া মেয়েদের প্রধান বৈশিষ্ট্য। তাদের অধিকাংশই, প্রায় ৯৯ শতাংশ আছে লম্বা এবং সুন্দর ফিগার এবং আকৃষ্টকারী, আবেদনময়ি, আক’র্ষণীয় চোখ।