মান্না আংকেল সেদিন চেয়ার থেকে উঠে না আসায় আমি নায়ক হয়ে গেলাম : কাজী মারুফ

চিত্রনায়ক কাজী মারুফ বলেছেন, চিত্রনায়ক মান্না বেঁচে থাকলে শাকিব খান এই পর্যায়ে আসতে পারতেন না। এখন যে পর্যায়ে শাকিব খান অবস্থান করে নিয়েছেন, সেই অবস্থানে আসলেও তাকে অনেক কষ্ট করতে হতো।

মারুফ বলেন, মান্না আংকেল বেঁচে থাকলে শাকিব খান তার এই অবস্থানে আসতে পারতেন না। কারণ মান্না আংকেল সিনেমা নিয়ে যে ভাবনা ছিল সেই ভাবনা শাকিব খানের নেই। আর মান্না আংকেল কিন্তু পলি’টিক্স খুব ভালো বুঝতেন। কোন ছবিতে কাকে ব্যবহার করলে তার সিনেমাটি হিট হবে তিনি তাই করতেন। যেমন, একটা উদাহরণ দেই, মৌসুমী ও শাবনূর জনপ্রিয় নায়িকা। তাদের একসঙ্গে কেউ সিনেমায় আনতে পারেননি। মান্না আংকেল ঠিকই তাদের একসঙ্গে নিয়ে এসে সিনেমা নির্মাণ করে সুপারহিট করে নিলেন।

মারুফ বলেন, এই যে তার ফিল্ম পলি’টিক্স এটা কারও ভেতরেই ছিল না। যেটা শাকিব খানেরও নেই। তাই শাকিব খানকে মান্না আংকেল বেঁচে থাকলে তাকে অনেক সাধনা করতে হতো। শাকিব নিজেও কিন্তু এই বিষয়টি স্বী’কার করেন। মান্না আংকেল আমার বাবাকে (কাজী হায়াত) বলতেন হায়াত ভাই আপনি ফিল্ম পলি’টিক্স সম্পর্কে কিছুই বোঝেন না। আসলেই বাবা কিন্তু এসবের কিছুই বুঝতেন না।

ইতিহাস খ্যাত নায়ক কাজী মারুফ বলেন, ফিল্মে পলিটিক্স সম্পর্কে যে না বুঝবে সে কিন্তু কিছুই করতে পারবেন না। শুধু শাকিব খান না, মান্না আংকেল থাকলে এখন অর্থাৎ ২০২০ সালে এসেও তার রাজত্ব থাকত। আমার নায়ক হওয়ার পেছনে মান্না আংকেলের হাত রয়েছে। আমাদের একটি প্রোডাকশনের কাজ ছিল। উনি শর্ট দিয়ে মেকআপ রুমে বসে ছিলেন। আমাদের সহকারী মান্না আংকেলকে ডাকতে গেলে উনি বসে ছিলেন কিন্তু উনি আসেননি। তখন বাবা তার ওপর মন খারাপ করেই আমাকে নিয়ে সিনেমা নির্মাণ করেন। ছবিটা সুপারডুপার হিট হয়। মান্না আংকেল চেয়ার থেকে না উঠে আসায় কিন্তু আমি চলচ্চিত্রে আসলাম।