যে কারণে আইপিএলে সুযোগ পাচ্ছেন না পাকিস্তানিরা

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) উদ্বোধনী আসরে ২০০৮ সালে অংশ নিয়েছিলেন পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা। এরপর গত ১১ আসরে বিশ্বের অন্যান্য দেশের ক্রিকেটাররা নিয়মিত খেললেও দেখা যায়নি পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের। প্রতিবেশী দুই দেশের সীমান্ত সম’স্যার কারণে ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে গত ১৪ বছর ধরে কোনো টেস্ট সিরিজ হচ্ছে না।

আইসিসি টুর্নামেন্ট ছাড়া ভারত-পাকিস্তানকে মাঠের ল’ড়া’ইয়ে দেখা যাচ্ছে না। একই কারণে ভারতের জনপ্রিয় ফ্রাঞ্চাইজি টুর্নামেন্টে সুযোগ পাচ্ছেন না পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) চেয়ারম্যানের দায়িত্ব নেয়ার পর আপনি কি কখনও ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের (বিসিসিআই) কর্মকর্তার সঙ্গে এ বিষয়ে আলোচনা করেছেন?

এমন প্রশ্নের জবাবে সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে এহসান মানি বলেছেন, না, ‘একবারও আলোচনা করিনি। আলোচনা করে কোনো লাভও নেই। কারণ এটি বিসিসিআইয়ের হাতে নেই। আমাদের হাতেও এ বিষয়টি নেই। এটি দুই দেশের সরকারের ব্যাপার।’ ভারতীয় সাবেক সফল অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলী বিসিসিআইয়ের সভাপতি হয়েছেন বছর হতে চলল।

অথচ এখনও দেখা সাক্ষাৎ হয়নি প্রতিবেশী দুই দেশের ক্রিকেট বোর্ডের কর্তাব্যক্তির সঙ্গে। তবে সৌরভ গাঙ্গুলীর সঙ্গে দুইবার ফোনে কথা হয়েছে বলে জানান এহসান মানি। ভারতে ম’হামা’রী করোনা ভাইরাস তুলনামূলক বেশি সং’ক্র’মিত হওয়ায় এ বছর আইপিএল হচ্ছে সংযু’ক্ত আরব আমিরাতে। আগামী ১৯ সেপ্টেম্বর আইপিএলের ১৩তম আসর শুরু হবে।

করোনায় আইপিএল আয়োজন নিয়ে মানি বলেছেন, আসলে এখন আয়োজকদের মতো খেলোয়াড়দের বাড়তি স’ত’র্ক থাকতে হবে। বিসিসিআই ও আমিরাত ক্রিকেট বোর্ড যে গাইডলাইনগুলো দেবে সেগুলো সবাইকে অ’নুস’রণ করতে হবে। আয়োজকদের নি’শ্চি’ত করতে হবে ক্রিকেটারদের স্বাস্থ্য সুর’ক্ষার বিষয়টি।