নামাজ পড়লে কঠিন রোগ থেকেও মুক্তি পাওয়া যায়

নামাজ হল ইসলাম ধর্মের প্রধান উপাসনাকর্ম। প্রতিদিন ৫ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করা প্রত্যেক মুসলিমের জন্য ফরজ। ঈমান বা বিশ্বাসের পর নামাজই ইসলামের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ স্ত’ম্ভ।

একজন মুসলমান হিসেবে আমাদের প্রত্যকেরই নামাজ আদায় করা উচিৎ। তাতে আসুক যত বা’ধা-বিপ’ত্তি। কিছু কিছু রোগ আছে যার নামাজ ব্যতিত কোন ঔষধ বা প্রেসক্রিপশন নেই। নামাজ হা’র্ট এ্যা’টাক, প্যা’রালা’ইসিস, ডায়া’বেটিস, মেলি’টাস ইত্যাদির বিরু’দ্ধে প্রতিরো’ধ সৃ’ষ্টিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূ’মিকা পালন করে।

হা’র্টের রোগীদের প্রতিদিন বাধ্যতামূলকভাবে পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করা উচিত, যেমনিভাবে তারা তাদের ডাক্তারদের নিকট খা’রাপ অবস্থা থেকে উত্ত’রণের জন্য অনুমতি লাভ করে থাকেন।

নামাজ একটি উত্তম ইসলামী ব্যায়াম, যা মানুষকে সব সময় সতেজ রাখে, অল’সতা এবং অব’সাদগ্র’স্ততাকে শরীরে বা’ড়তে দেয় না। অন্যসব ধর্মের মধ্যে এমন সামগ্রিক ইবাদত আর নেই যা আদায়ের সময় মানুষের সকল অ’ঙ্গ ন’ড়াচ’ড়া ও শ’ক্তিশালী হয়।

নামাজীর জন্য এটা একটা বিশেষ বৈশিষ্ট্য যে, এটা একা’ন্তই সামগ্রিক ব্যায়াম যার প্রভাব মানবের সকল অ’ঙ্গগুলোতে পড়ে এবং সামগ্রিক মানব অ’ঙ্গগুলোতে ন’ড়াচ’ড়া ও শ’ক্তি সৃষ্টি হয় এবং স্বাস্থ্য অটু’ট থাকে। যদিও নামাজের মূল উদ্দেশ্য হল আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জন করা। কারণ মুসলিমদের এটাই মূল ইবাদত।