বাংলাদেশিদের জাপানে ঢুকতে কড়াকড়ি

বাংলাদেশসহ চারটি দেশ থেকে পুনঃপ্রবেশের ক্ষেত্রে কড়াকড়ি আরোপ করেছে জাপান। সম্প্রতি দেশটির কয়েকটি বিমানবন্দরে যাত্রীদের স্ক্রিনিংয়ে ব্যাপক সংখ্যক কোভিড-১৯ পজিটিভ ধরা পড়ে। এছাড়া সেখানে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে থাকায় এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশটি।

জাপান টাইমসের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, শুক্রবার থেকে দেশগুলো থেকে জাপানে পুনঃপ্রবেশকারীদের করোনাভাইরাসমুক্ত সনদ ও পূর্বানুমতি থাকা বাধ্যতামূলক করা হয়। বাংলাদেশ ছাড়াও পাকিস্তান, ফিলিপাইন ও পেরুর নাগরিকদের জাপানে প্রবেশের ক্ষেত্রে এই কড়া প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে যেতে হবে।

জাপানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, স্থায়ী বাসিন্দা এবং দীর্ঘ মেয়াদি ভিসাধারী ব্যক্তি, স্থায়ী বাসিন্দার স্বামী-স্ত্রী বা সন্তান অথবা একই মর্যাদার জাপানি নাগরিকরা এই কড়াকড়ির আওতায় পড়বেন। বাংলাদেশ, পাকিস্তান, ফিলিপাইন ও পেরুর নাগরিকরা জাপানে প্রবেশের অনূর্ধ্ব ৭২ ঘণ্টার মধ্যে সম্পন্ন করোনাভাইরাসে পরীক্ষার ফল ‘নেগেটিভ’ এলে এবং পূর্বানুমতি থাকলেই প্রবেশ করতে পারবে।

তাই জরুরি কাজে যেতে বা কর্মস্থলে ফিরতে অভিবাসী বা সফরকারীদের জাপানের দূতাবাস ও কনস্যুলার কার্যালয় থেকে অনুমতিপত্র সংগ্রহ করে নিতে অনুরোধ করেছে দেশটির ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ।