প্রচণ্ড গরমেও মসজিদে মুসল্লিদের জুতা সাজিয়ে রেখেই প্রশান্তি পান এক অমুসলিম!

আ’ল-মাও’য়া’দ্দাহ মস’জিদ, সিঙ্গা’পুর। প্রতি শু”ক্র’বার এ মসজিদে ব্যতিক্রমধর্মী কাজে নিয়োজিত এক অমু’সলিম যুবকের দেখা মেলে। প্র”চণ্ড গরমেও মস”জিদের বাইরে বসে মুসল্লিদের জুতাগুলো সোজা করে সারি সারিভাবে সাজিয়ে রেখে প্রশান্তি লাভ করে।

অ্যাং”কল স্টি”ভেন। সে অমুস’লিম। শুক্রবার শুধু মুসল্লি’দের জুতা সোজা করে সাজিয়ে রাখায় আ”নন্দ পায় সে। এ আ’নন্দ অনুভূতি থেকেই প্রতি শুক্রবা’র সিঙ্গা”পুরের আল-মাওয়াদ্দাহ মসজিদের সামনে চলে আসে।

ইম”রান মুস্তা’ফা নামের এক স্কুল শিক্ষক মুসল্লি তার ফেসবুক”ওয়ালে তুলে ধরে এ ঘটনা। যা খবর আকাশে”র প্রকাশ করেছে ইলমফিড.কম। ফেসবুকে ইর’ফান মুস্তা’ফা জানান, ‘মুসল্লিরা মসজিদে এসে যখন প্রচ’ণ্ড সূর্যে’র তাপে বাইরে অবস্থান করতে পারে না। মস’জিদের ভেতরে এসিতে নামাজ আদায় করে তখন অ্যাং’কল স্টি’ভেন প্রচণ্ড গরমের মধ্যেই মুসল্লিদে’র জুতা সারি সারি করে সাজিয়ে

রাখতে ব্য’স্ত সময় পার করে। অ্যাংকল স্টি’ভেন জা’নায়, মস’জিদের বাইরে জুতাগুলো সারি সারি সা”জিয়ে রাখলে সুন্দর দেখা যায়। আমি মসজি’দের কাছা’কাছিই থাকি এবং প্রতি শুক্রবার আসার চেষ্টা করি। এ কাজটি আমি কেন করি, তা আমা’র জানা নেই তবে সারি সারি সাজানো জুতাগুলো
দেখতে আমা’র ভালো লাগে। আর মসজিদে এসে এ কাজ করে আমি প্রশান্তি লাভ করি।

পড়ুন,
আ’জ ১১ জু’লাই, বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস। ‘কোভি’ড-১৯ কে প্র’তিরো’ধ করি, নারী ও কিশোরীর সুস্বা’স্থ্যের অধি’কার নি’শ্চিত করি’ স্লোগানে বিশ্বের অন্যা’ন্য দেশে’র মতো বাংলাদেশেও দিবসটি পালিত হবে। এ দিবস উপলক্ষে শনিবার বেলা ১১টায় পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতরের আইইএম ইউনিট এক ভার্চু’য়াল অনু’ষ্ঠানের আয়োজন করেছে। এতে প্রধান অতিথি থাক’বেন স্বাস্থ্য’মন্ত্রী জাহিদ মালিক।

স্বা’স্থ্য’ ও পরি’বার ক’ল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরি’বার ক’ল্যাণ বিভাগের সচিব মো. আলী নূরের সভাপতিত্বে অনু’ষ্ঠানে বিশেষ অতিথি থাকবেন মন্ত্রণাল’য়ের স্বা’স্থ্য’ সেবা বিভাগের সচিব আবদুল মান্নান। অনুষ্ঠানে শ্রেষ্ঠ পরিবার পরিকল্পনা কর্মী ও শ্রেষ্ঠ সেবা দানকারী প্রতিষ্ঠানকে পুরস্কার দেয়া হবে। একই সঙ্গে মিডিয়া অ্যা’ওয়ার্ড ও মিডিয়া ফেলোশিপ ২০২০ দেয়া হবে। জাতি’সংঘ জনসংখ্যা তহবিলের

(ইউএনএ’ফপিএ) এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কোভিড-১৯ প’রিস্থি’তি চলমান থাকলে এবং ল’কডা’উন প’রিস্থি’তি যদি আরো ছয় মাস দীর্ঘ হয় তাহলে নি”ম্ন-ম”ধ্যম ও নিম্ন আয়ের ১১৪ দেশে ৪৭ মিলিয়ন (৪ কোটি ৭০ লাখ) নারী আধুনিক জ’ন্মনিয়ন্ত্রণ পদ্ধতি থেকে বঞ্চিত হবেন। আর অতিরিক্ত ৭ মিলিয়ন (৭০ লাখ) নারী অনাকাঙ্ক্ষিত

গর্ভধা’রণের শি’কার হবেন। প্রতিবেদন অনুসারে, কোভিড-১৯ পরিস্থিতি বাল্যবিবাহের ওপর ব্যাপক প্রভাব ফেলবে। বিশ্বে ১৩ মিলিয়ন (১ কোটি ৩০ লাখ) বাল্যবিবাহ হবে। এর মধ্যে ৮ মিলিয়ন (৮০ লাখ) বাল্যবিবাহ হবে শুধু বাংলাদেশে। যেখানে বাল্যবিবাহের হার ৫০ শতাংশেরও বেশি। ১৯৮৯ সালে জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচির গভর্নিং কাউন্সিল জনসংখ্যা ইস্যুতে গুরুত্ব প্রদান ও জরুরি মনোযোগ আকর্ষণের লক্ষ্যে বিশ্বব্যাপী ১১

জুলাই বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস পালনের সিদ্ধান্ত নেয়। ১৯৯০ সালের ১১ জুলাই প্রথমবারের মতো ৯০টি দেশে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস উদযাপিত হয়। এরপর থেকে প্রতিবছর দিবসটি পালিত হচ্ছে।


“দৃষ্টি আকর্ষণ ”
এই সাইটে সাধারণত আম’রা নিজস্ব কোনো খবর তৈরী করি না।..আম’রা বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর’গুলো সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি..তাই কোনো খবর নিয়ে আ’পত্তি বা অ’ভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কতৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।
“বিশেষ দ্রষ্টব্য” কোনো শব্দের বানানে ভুল-ত্রুটি হলে, দয়া করে ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন।