মাস্ক ব্যবহার করেও যে কারণে বিপদ হতে পারে!

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচতে মাস্ক পরতে হবে- এটা কমবেশি সবার জানা। তবে কোনো কোনো ক্ষেত্রে মাস্কও বিপজ্জনক হয়ে উঠতে পারে বলে জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। মাস্ক মুখে দিয়ে শরীরচর্চা, প্রাতঃভ্রমণ বা জগিং করলে শরীর পর্যাপ্ত অক্সিজেন গ্রহণ করতে পারবে না। এই অবস্থায় অক্সিজেন কমে গিয়ে উল্টো তা স্বাস্থ্যের জন্য বিপজ্জনক হতে পারে বলে জানিয়েছে সংস্থাটি! তাই এই সময় মাস্ক না পরাটাই শ্রেয় বলে জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

খুব ভারী ধরনের কাজ, খুব বেশি দৈহিক পরিশ্রম হয়, এমন কাজের সময় মাস্ক পরে থাকলে শরীরে প্রয়োজনীয় অক্সিজেনের ঘাটতি দেখা দেয়। মস্তিষ্কে রক্ত সঞ্চালনের স্বাভাবিক ছন্দ হারিয়ে যায়। এ কারণে দেখা দিতে পারে একাধিক স্বাস্থ্য সমস্যা। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, তাই খুব বেশি দৈহিক পরিশ্রম হয়, এমন কাজের সময় মাস্ক পরে থাকা যাবে না। তবে আশপাশে যদি করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি থাকে সেখানে মাস্ক পরে যেতে হবে।

যেমন শারীরিক অনুশীলন জনবহুল স্থানে না করে একেবারে নির্জন স্থানে অনুশীলন করতে হবে। যেখানে কারও কাছ থেকে আপনার দেহে জীবাণু আসবে না। শরীরচর্চা, প্রাতঃভ্রমণ, জগিং, অত্যধিক দৈহিক পরিশ্রম যুক্ত ভারী কাজের সময় মাস্ক পরে থাকলে শরীরে অক্সিজেনের ঘাটতির ফলে অস্বাভাবিক ক্লান্তি, শরীরের বিভিন্ন অংশের পেশিতে টান পড়া বা খিঁচুনি, বমি ভাব, মাথা ঘোরানো এমনকি স্ট্রোক পর্যন্ত হতে পারে।