তৃতীয়বার ধ’র্ষণ করতে না দেওয়ায় প্রথম ধ’র্ষণের ভিডিও ফেসবুকে দিল প্রেমিক

প্রে’মিকাকে ধ’র্ষণের ভিডিও গো’পনে ধারণ করে সিরাজুল ইস’লাম (৩০)। পরে আবারো ধ’র্ষণ করতে গেলে প্রে’মিকা বাধা দেয়ায় সেই ভিডিও ফেসবুকে ছেড়ে দেয় সে। এ ঘটনায় সিরাজুলকে গ্রে’ফতার করেছে পু’লিশ।

গ্রে’ফতার সিরাজুল ইস’লাম দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজে’লার ৭নং শি’বনগর ইউনিয়নের লক্ষণপুর পাঠকপাড়া গ্রামের আফজাল মন্ডলের ছে’লে। সে পেশায় একজন মুদি দোকানি।

শনিবার ভোরে ধ’র্ষক সিরাজুল ইস’লামকে নিজ বাড়ি থেকে গ্রে’ফতার করে ফুলবাড়ী থা’না পু’লিশ। দুপুরে তাকে কোর্টে চালান দেয়া হয়েছে।

পু’লিশ জানায়, প্রে’মের সুযোগ নিয়ে লক্ষণপুর পাঠকপাড়ার নবম শ্রেণির এক ছা’ত্রীর বাড়িতে যায় সিরাজুল ইস’লাম। এ সময় তাকে বাড়িতে একা পেয়ে ধষর্ণ করে কৌশলে ভিডিও ধারণ করে।

ওই ভিডিও দেখিয়ে সিরাজুল ইস’লাম দ্বিতীয়বারও তাকে ধষর্ণ করে। তৃতীয়বার ধ’র্ষণ করতে গেলে মে’য়েটি বুঝতে পারে ভিডিও দেখিয়ে তাকে ব্ল্যাকমেইল করা হচ্ছে। ফলে সে বাধা দেয়। এতে সিরাজুল ইস’লাম ক্ষুব্ধ হয়ে ধ’র্ষণের ভিডিও ফেসবুকে ছেড়ে দেয়।

বিষয়টি জানতে পেরে ওই ছা’ত্রীর মা শুক্রবার রাতে ফুলবাড়ী থা’না পু’লিশকে অবগত করেন। পরে পু’লিশ আজ ভোরে অ’ভিযান চালিয়ে ধ’র্ষক সিরাজুল ইস’লামকে গ্রে’ফতার করে।

শনিবার সকালে মে’য়ের মা বাদী হয়ে ফুলবাড়ী থা’নায় একটি মা’মলা দায়ের করেছেন।

ফুলবাড়ী থা’নার ওসি মো. ফখরুল ইস’লাম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, শনিবার গ্রে’ফতারকৃত সিরাজুল ইস’লামকে কোটে পাঠানো হয়। বিচারক জামিন না মঞ্জুর করে জে’ল হাজতে পাঠিয়েছেন। ভিকটিমকে পরীক্ষার জন্য দিনাজপুরের এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজের ফরেন্সিক বিভাগে পাঠানো হবে।