অপূর্বের পর এবার ডিভোর্স নিয়ে মুখ খুললেন অদিতি

স্ত্রী নাজিয়া হাসান অদিতির সঙ্গে বিচ্ছেদ হয়েছে ছোট পর্দার জনপ্রিয় নায়ক জিয়াউল ফারুক অপূর্বর।

এতে করে তাদের ৯ বছরের দাম্পত্য জীবনের ইতি ঘটেছে। রবিবার (১৭ মে) ফেসবুকের মাধ্যমে খবরটি সবাইকে জানিয়েছেন উভয়ই। এদিকে বিচ্ছেদের নির্দিষ্ট কোনো কারণ না বললেও একে অপরের প্রশংসা করে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন অপূর্ব-অদিতি দুজনই।

বেশ কিছুদিন আগেই বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটলেও রবিবার প্রকাশ্যে আসে তা। গণমাধ্যমকে বারবার এড়িয়ে গেলেও রবিবার রাতে নিজের ফেসবুকে ‘ডিভোর্স’ নিয়ে বিস্তারিত লেখেন অপূর্বর সদ্য প্রাক্তন স্ত্রী অদিতি।

নাজিয়া লেখেন, ‘অপূর্ব একজন অমায়িক বাবা, ভাই, দায়িত্বশীল পুত্র এবং একজন ভাল মানুষ। লাখও ভক্তদের কাছে তিনি অসম্ভব মেধাবী, যা তিনি নিজেই অর্জন করেছেন। তিনি যে অবস্থানে আছেন, তার যোগ্য তিনি।

দয়া করে তাকে তার ব্যক্তিগত জীবন দিয়ে নয়, তার অসাধারণ কাজগুলো দিয়ে বিচার করুন। দুর্ভাগ্যক্রমে আমরা কিছু কারণে একসাথে থাকছি না তবে আমি তার জন্য সুখী ও সমৃদ্ধ জীবন কামনা করছি। তিনি আমাকে সেরা উপহার হিসেবে পুত্র আয়াশকে দিয়েছেন।

ডিভোর্সের সিদ্ধান্তের জন্য দয়া করে আমাদের কাউকে ভুল বুঝবেন না। আপনারা যেভাবে আমাদের ভালবাসা দিয়ে এসেছেন এবং সমর্থন করেছেন, আশা করি তা অব্যাহত রাখবেন।’ সেইসাথে কোনো ভিত্তিহীন সংবাদে যে সাংবাদিকরা বিভ্রান্ত না হন সে বিষয়েও অনুরোধ জানান তিনি।

এরআগে ২০১০ সালের ১৯ আগস্ট অভিনেত্রী সাদিয়া জাহান প্রভাকে বিয়ে করেছিলেন অপূর্ব। যদিও এর পরের বছরের ফেব্রুয়ারিতেই ডিভোর্স হয়ে যায় তাদের। ওই বছরের ১৪ জুলাই অপূর্ব পারিবারিকভাবে নাজিয়া হাসান অদিতিকে বিয়ে করেন।