আকবর আলীদের প্রিয় ‘স্টোনিয়ের ভাই’

বাংলাদেশের প্রথম বিশ্বকাপ জয়ের পেছনে অনূর্ধ্ব-১৯ দলের স্ট্রেংথ অ্যান্ড কন্ডিশনিং কোচ

রিচার্ড স্টোনিয়ের ভূমিকা দারুণভাবে প্রশংসিত হচ্ছে। মাঠের বাইরে দাঁড়িয়ে পুরোটা সময় দলকে উজ্জীবিত করে গেছেন। সমর্থকদের মতো চিৎকার করেছেন।

পুরো টুর্নামেন্টে বাংলাদেশের ফিল্ডিং ও ফিটনেস প্রশংসা কুড়িয়েছে। বিশ্বকাপ জিতে দল প্রমাণ করেছে স্টোনিয়ের কোচিং সফল। এটি যে তারই দায়িত্ব ছিলো।

স্ট্রেংথ অ্যান্ড কন্ডিশনিং কোচ অবশ্য ক্রিকেটারদের জয়ের কৃতিত্বে কোনো ভাগ নেননি।

বলেছেন, এরা সবাই আমাকে পরিবারের অংশ বানিয়ে নিয়েছে। আজকের দিনটা এ ছেলেদের। তাদের কঠোর পরিশ্রমের ফল এটা।

তিনি জানান, গত ১২ মাসে ওরা যে আত্মত্যাগ করেছে তার ফল। ওদের এটা প্রাপ্য। আমি

ওদের মাঝে উদ্দীপনা তৈরি করার চেষ্টা করেছি। দেখানোর চেষ্টা করেছি, ওরা ওদের সেরাটা কীভাবে দেখাতে পারে।

স্টোনিংয়ের উচ্ছ্বাস কিংবা উদ্দীপনা দেখলে যে কেউ বুঝবেন এই দলটার সাথে কীভাবে মিশে গেছেন তিনি। আর সেটি যদি না দেখে থাকেন তাহলে স্টোনিংয়ের মুখের কথা শুনুন,

এদেশের ছেলেরা কোচিং স্টাফদের ‘স্যার’ ডাকে। তবে আমাকে ওরা ‘ভাই’ বলে ডাকে। এভাবেই আপন করে নিয়েছে আমায়।
এভাবেই দলে সাথে মিশে গেছেন- স্টোনিয়ের ভাই!