আয়াতুল কুরসি পড়ে প্যারালাইসিস থেকে সুস্থ হলেন অভিনেতা গাঙ্গুয়া

পবিত্র কুরআনের অলৌকিকত্ব প্রকাশ পেল আবারো। আয়াতুল কুরসি পাঠ করে প্যারালাইসিস থেকে সুস্থ হলেন এক সময়কার ঢাকাই সিনেমার পরিচিত খলঅভিনেতা গাঙ্গুয়া (মোহাম্মদ পারভেজ চৌধুরী)।

সম্প্রতি এক ভাইরাল ভিডিওতে এমনটিই দাবি করলেন তিনি। ওই ভিডিওতে তিনি বলেন, আয়াতুল কুরসি পড়তে পড়তেই আমি আবার সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক জীবন ফিলে পেয়েছি।

ভাইরাল ভিডিওতে গাঙ্গুয়া জানান, তার প্যারালাইসিস হয়েছিল। দুই বছর চিত হয়ে শুয়ে ছিলেন, সাধ্য ছিল না একটু কাত হবেন। কথাবার্তা বলতে পারতেন না। তখন জীবন পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নিলেন। পরে নামাজ পড়া শুরু করলেন গাঙ্গুয়া। আর কথা বলা শিখতে কুরআন পড়তে লাগলেন। এ সময় কুরআনের আয়াতুল কুরসি মুখস্থ করেন তিনি এবং আয়াতুল কুরসি পড়তে পড়তেই তিনি আবার সুস্থ হয়ে আগের সেই স্বাভাবিক জীবন ফিলে পেয়েছেন।

তার এরূপ সুস্থ হওয়া দেখে চিকিৎসকরা অবাক বলে জানান গাঙ্গুয়া। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘ডাক্তাররা আমাকে দেখে অবাক হন। ব্রেইন স্ট্রোকের রোগী পুরোপুরি সুস্থ হয় না। কিছু না কিছু শারীরিক সমস্যা থাকেই। কিন্তু আমি পুরোপুরি সুস্থ। দেখে কেউ বুঝতেই পারবেন না যে, আমি সেই ব্রেইন স্ট্রোক করা গাঙ্গুয়া। এখন আমি আগের মতোই সবল।

নিয়মিত কাজও করছি। আমি কিভাবে সুস্থ হলাম আল্লাহ পাকই ভালো জানেন। আমি নিয়মিত ব্যায়ম করছি। নামাজ পড়ছি। যেখানে যে অবস্থায়ই থাকি না কেন, নামাজ ছাড়ব না। আল্লাহ-রাসূল সা:-এর নাম নিয়ে পথ চলি। আমার চলার পথের সঙ্গী এখন আয়াতুল কুরছি।’

ভক্তদের উদ্দেশে গাঙ্গুয়া বলেন, ‘আমার মতো যারা অসুস্থ আছেন তাদের বলব, আপনারা আল্লাহর ওপর ভরসা রাখেন। আল্লাহ-রাসূল সা:-এর নাম নেন। নামাজ ও কুরআন তেলাওয়াত করেন। আল্লাহ আপনাদের সুস্থ করে তুলবেন।

কোনো মানুষের কাছে কিছু চাইলে, সে আপনাকে কতটুকুইবা দেবে। আল্লাহ যদি সামান্যও দেন, তাহলে দেখবেন রহমতের তুলনায় আপনার ঘর ছোট হয়ে গেছে। আমি গাঙ্গুয়া তার বড় প্রমাণ। একটি কথাও আমি মিথ্যা বলিনি। সব সত্যি। সবাই ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন। আমার জন্য দোয়া করবেন।