বাস’র রা’তে আদরে’র আগে’ই নতুন বউ’য়ে’র কা’ণ্ড

প্রেম আর বিয়ে, জীবনের সম্পূর্ণ ভিন্ন দুটি অধ্যায়। একটায় যেমন দায়িত্ব নেই, আছে কেবল আনন্দ। আরেকটায় ঠিক তেমনই আছে ভালোলাগার পাশাপাশি দায়িত্ব নেয়ার বি’ষয়টাও। আর তাই প্রেমের বিয়ে

হোক বা পারিবারিক, বিয়ের আগে নিজের হবু স্বামীকে কিছু প্রশ্ন অবশ্যই করা উচিত। বাসর রাতে অথবা বিয়ের আগে হবু স্বামীকে যে ১০টি প্রশ্ন অবশ্যই করবেন, চলুন এবার তাহলে জেনে নিই প্রশ্নগু’’লো কী কী-

১) তুমি আমাকে কেন ভালোবাসো? এই প্রশ্নটা বলতে গেলে কেউই করেন না। কিন্তু এটাই সবচাইতে জরুরি। কেন ভালোবাসেন তিনি আপনাকে? প্রথম জবাব যদি হয়- ‘তুমি অনেক সুন্দর’… তাহলে দ্বিতীয়বার ভাবুন। একজন মানুষ অনেক সুন্দর বলে তাকে ভালোবাসা আর যাই হোক সততার পর্যায়ে পড়ে না। তাহলে সময়ের সাথে সৌন্দর্য চলে গেলে ভালোবাসাও তখন ফুরিয়ে যাব’ে।

২) তুমি আমা’র সাথেই পুরো জীবনটা কা’টাতে চাও কেন? সেই সাথে নিজেকেও প্রশ্ন করুন- আপনি তার সাথে পুরো জীবন কা’টাতে চান কেন? এবং তারপর মিলিয়ে দেখু’ন পরস্পরের জবাব। মানসিকতা মিলছে কি-না?

৩) সন্তানের বি’ষয়ে তোমা’র ভাবনা কী?তিনি সন্তান স’ম্পর্কে কী ভাবেন, ভালোবাসার ফসল নাকি বংশ বৃ’দ্ধির হাতিয়ার? তাহার আজকাল সন্তান না হওয়াটাও খুব সাধারণ ব্যাপার। যদি সন্তান না হয় আপনাদের কোন কারণে, যদি কারণ অক্ষমতা থাকে, সেক্ষেত্রে তার মনোভাব কী হবে সেটা জেনে রাখা অত্যন্ত জরুরি।

৪) তোমা’র জীবনের সবচাইতে গু’’রুত্বপূর্ণ ব্যাপারটা কী? এই ব্যাপারটাও জেনে রাখাটা খুব বেশি জরুরি। তাহলে আপনি জানতে পারবেন কোন বি’ষয়গু’’লোকে তিনি গু’’রুত্ব দেন আর কোথায় কখনো আপনার উচিত হবে না হস্ত’ক্ষেপ করা।

৫) একদিন আমি এমন থাকবো না দেখতে, তখন কী হবে? বয়সের ছাপ সবার চেহারাতেই পড়ে। এবং মেয়েদের ক্ষেত্রে অনেকটা আগে পড়ে। এই প্রশ্নের সৎ উত্তর পাবেন কি-না জানা নেই, তবে প্রশ্নটা অবশ্যই করুন। ৬) যদি কখনো আমা’র বড় অসুখ হয় তখন তুমি কী করবে? এই প্রশ্নের জবাব আপনাকে সাহায্য করবে তাকে আরও ভালোভাবে বুঝতে। কোন ভুল ধারণা থাকবে না মনে।

৭) তুমি কি ওয়াদা করতে পারো যে দাম্পত্যে প্রতারণা করবে না? এই ওয়াদা কেউ রক্ষা করতে পারবে কি পারবে না, সেটা ভবি’ষ্যতই বলে দেবে। কিন্তু কেউ যদি জীবনের শুরুতেই এই ওয়াদা করতে গড়িমসি করেন, বাকিটা আপনি নিশ্চয়ই আন্দাজ করতে পারছেন।

৮) জীবনের চড়াই উৎরাইতে আমি কোনও ভুল করে ফেললেও কি পাশে থাকবে? পুরো পৃথিবী যদি কখনো বিপক্ষে চলে যায়, একজন মানুষ অন্ধভাবে বিশ্বা’স করে ও ভালোবেসে পাশে থাকবে আপনার, পৃথিবীতে এর চাইতে সুন্দর আর কিছুই ‘’হতে পারে না। এর চাইতে বেশি নিরাপদও না।

৯) বিয়ের পরও কি আমর’া নিজ নিজ স্বপ্ন ও উদ্দেশ্য পূরণের জন্য কাজ করতে পারব? বিয়ে মানেই জীবন ফুরিয়ে যাওয়া নয়। বিয়ে মানে নতুন একটি অধ্যায়ের শুরু। একটাই জীবন, সকলেরই আজন্ম লালিত কিছু স্বপ্ন থাকে। সেই স্বপ্নগু’’লোর কী হবে সেটা আগেই জেনে রাখা ভালো।

১০) আমা’দের দাম্পত্যের ভবি’ষ্যৎ নিয়ে তুমি কী ভেবেছো? একটু আগেই বললাম, দাম্পত্য মানে একটা নতুন অধ্যায়। আর জীবনের এই অধ্যায়ে চাই প্রচুর পরিকল্পনা। কোনও অগ্রিম পরিকল্পনা ছাড়া দাম্পত্য কখনোই সফল ‘’হতে পারে না। আপনারও নিশ্চয়ই কিছু প্ল্যান আছে? তাহলে আগেই জেনে রাখু’ন হবু স্বামীর পরিকল্পনা।