তৃতীয় স্ত্রীকে নিয়ে যা বললেন সঞ্জয় দত্ত

বিতর্ক আর বলিউড তারকা সঞ্জয় দত্ত অনেকটা সমার্থক শব্দেই যেন পরিণত হয়েছিল একসময়। পর্দায় মেজাজি সঞ্জয়কে পর্দার বাইরেও রাগান্বিত অবস্থায় দেখা গেছে অনেকবার। রাখঢাক না রেখেই, মনের কথা বলে ফেলেন এমন তারকা খুঁজতে গেলে সঞ্জয়ের নাম শুরুর দিকেই থাকবে। তবে ইদানীং অনেকটাই শান্ত ‘মুন্না ভাই’খ্যাত সঞ্জয় দত্ত। বয়সও যে কম হলো না।

হিন্দুস্তান টাইমসের সাম্প্রতিক প্রতিবেদনে জানা যায়, তৃতীয় স্ত্রী মান্যতা দত্তের প্রতি বেশ সন্তুষ্ট সঞ্জয় দত্ত। নয় বছর বয়সী যমজ সন্তান শাহরান ও ইকরাকে নিয়ে বেশ ভালোই সময় কাটছে তাঁদের। আগামীতে সঞ্জয়-মান্যতার যৌথ প্রযোজনায় ‘প্রস্থনাম’ ছবিতে দেখা যাবে সঞ্জয়কে।

সম্প্রতি মুম্বাই মিররকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে কারাবাস পরবর্তী জীবন নিয়ে মুখ খোলেন সঞ্জয় দত্ত। সঞ্জয় বলেন, ‘মান্যতার মতো স্ত্রীকে পেয়ে আমি সৌভাগ্যবান। বাড়ি, স্বামী, সন্তান ও কাজের প্রতিই সব মনোযোগ তার। ব্যবসা সম্পর্কেও তার গভীর অন্তর্দৃষ্টি রয়েছে, তাই আমি কখনোই তার ব্যবসায়ে হস্তক্ষেপ করি না। আমার বাবার মৃত্যুর পর মান্যতা আমাকে অনেক সাহায্য করেছে। সে কখনোই আমাকে ভেঙে পড়তে দেয়নি। আমাকে ধরে রাখতে সব সময়ই সে ছিল সচেষ্ট।’

এ পর্যায়ে সঞ্জয়ের সঙ্গে যোগ দেন মান্যতা দত্ত। তিনি বলেন, ‘যাঁরা বলেন যে আমি সঞ্জয়ের আশ্রয়স্থল, তাঁদের আমি বলি যে সে (সঞ্জয়) আমার জন্য পাল, যার দ্বারা ঝড় থেকে আমি নিজেকে রক্ষা করি। সে সব সময়ই আমিসহ সন্তানদের জন্য একটি শক্তি। এমনকি সে যখন ভেতরে থাকে, তখনো আমাদের জন্য চিন্তিত থাকে।’

আদালতে মামলার ব্যাপারে সঞ্জয়ের চিন্তিত থাকার ব্যাপার নিয়েও কথা বলেন মান্যতা। ‘সঞ্জয় একসময় বিরক্ত হয়ে পড়েছিল। আদালত যখন ঘোষণা করেন যে সঞ্জয় একজন সন্ত্রাসী নয় এবং তাকে অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দেন, তখন ওর বাবা বেঁচে ছিলেন না। এ মামলা ওর পরিবারের সুনামকে কলঙ্কিত করেছে, সঞ্জয়ও এতে কয়েক বছর বেশ বিরক্ত ছিল,’ বলেন মান্যতা।

নিজেদের যমজ দুই সন্তান শাহরান ও ইকরার ব্যাপারেও কথা বলেন সঞ্জয়-মান্যতা। মান্যতা জানান, তাঁদের কন্যা ইকরা একজন শিল্পী। তার আঁকা ছবি প্রতি বছরই বিদ্যালয়ের ম্যাগাজিনের জন্য নির্বাচিত হয়। তিনি ইকরার আঁকা ছবিগুলো নিয়ে শিগগিরই একটি প্রদর্শনী আয়োজনের পরিকল্পনা করছেন। মান্যতা আরো জানান, তাঁদের আরেক সন্তান শাহরান ক্রিকেট, ফুটবল তায়কোয়ান্দো খেলা পছন্দ করে।

সঞ্জয় দত্তকে সর্বশেষ দেখা গিয়েছিল ‘কলঙ্ক’ সিনেমাতে। যদিও ছবিটি বক্স অফিসে ঝড় তুলতে ব্যর্থ হয়।