পর**কীয়ায় পুরুষের চেয়ে নারীদের আগ্রহ বেশি

পরকীয়া শব্দটি এখন অতিপরিচিত। প্রতিদিন খবরের কাগজ খুললেই অহরহ শোনা যায় পরকীয়ার ঘটনা।পরকীয়ার জন্য ভেঙে যাচ্ছে সংসার, খুন হচ্ছে সন্তান।

তবে অনেকে জানতে চায় কেন এই পরকীয়া।পরকীয়ার জন্য দায়ী কোন বিষয়গুলো দায়ী। কিন্তু এই পরকীয়া সম্পর্কে কারা বেশি আগ্রহী? নারী নাকি পুরুষ?

সম্প্রতি এ নিয়ে গবেষণা চালিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে কানাডার অনলাইন ডেটিং অ্যান্ড সোশ্যাল নেটওয়ার্ক সার্ভিস অ্যাপ ‘অ্যাশলে ম্যাডিসন’।

প্রায় ১০০০ বিবাহিত নারী ও পুরুষের মধ্যে এ সমীক্ষা চালানো হয়। মিসৌরি স্টেট ইউনিভার্সিটির সমাজতত্ত্বের অধ্যাপক অ্যালিসিয়া ওয়াকার এ সমীক্ষা চালান।

অধ্যাপক অ্যালিসিয়ার গবেষণায় দেখা গেছে, পুরুষের চেয়ে নারীরাই বেশি পরকীয়া সম্পর্কে আগ্রহী হন। কারণ, প্রত্যেক সুস্থ স্বাভাবিক নারীই সপ্তাহে দু’বার শারীরিক সম্পর্কের চাহিদা অনুভব করেন। তার ব্যতিক্রম হলেই এক সময় ঘটে হিতে বিপরীত।

সমীক্ষা বলছে, যেসব নারীরা বিবাহিত জীবনে খুব সামান্য সুখ পেয়েছেন, তারাই বেশিরভাগ ক্ষেত্রে পরকীয়ায় মজেছেন। এই সম্পর্কের ক্ষেত্রে শরীরী চাহিদা মেটানোই সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব বহন করে।

সমীক্ষায় দেখানো হয়েছে, মূলত বৈবাহিক জীবনের শারীরিক অপূর্ণতা থেকেই নারীরা পরকীয়া সম্পর্কে জড়ান। নিজের সঙ্গীর অক্ষমতা অনেক নারীকে অন্য পুরুষ সঙ্গীর দিকে আকৃষ্ট করে।